ঢাকা,২৫শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

একটিতেই বিপাকে সিসিক, বসছে আরও ৫টি ‘ফুট ওভারব্রিজ’!

sisik.jpeg

স্টাফ রিপোর্টার :: সিলেট মহানগরীর আরও পাঁচ স্থানে স্থাপন করা হবে \’ফুট ওভারব্রিজ\’। সিসিকের উদ্যোগে এগুলো বসানো হবে। বিষয়টি গত ২৮ সেপ্টেম্বর সিসিকের ২০২০-২১ সালের বাজেট পেশকালে মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী এ তথ্য জনান।

তিনি বলেন, সিলেট মহানগরীতে রাস্তা পারাপারে ঝুঁকি এড়াতে সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে মহানগরীর মুরারীচাঁদ (এমসি) কলেজের সামনে ফুটওভার ব্রিজ স্থাপনের লক্ষ্যে কার্যাদেশ হয়েছে।

পর্যায়ক্রমে মদিনা মার্কেট পয়েন্টে, মেন্দিবাগ পয়েন্টে, হুমায়ুন রশীদ স্কয়ারে এবং শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনের সড়কে ফুট ওভারব্রিজ নির্মাণ করা হবে।

এদিকে, গত পাঁচ বছর আগে সিলেট নগরীর কোর্ট পয়েন্টে \’ফুট ওভারব্রিজ\’ বসানো হলেও সেটি দিয়ে পারাপারে আগ্রহী নন পথচারীরা। তাই নগরীর একমাত্র ব্রিজটি নিয়ে বিপাকে সিসিক। এরই মাঝে সিসিক আরও ৫টি ব্রিজ বসানোর পরিকল্পনা করায় অনকেই করছেন নেতিবাচক মন্তব্য।

উল্লেখ্য, সিলেট নগরীতে যানযট এবং দুর্ঘটনা রোধে কয়েক বছর আগে দাবি উঠে \’ফুট ওভারব্রিজ\’ নির্মাণের। দাবি জোরালো হলে দাবির প্রতি সম্মান জানিয়ে ওভারব্রিজ নির্মাণে সম্মতি প্রকাশ করেন তৎকালীন অর্থমন্ত্রী ও সিলেট-১ আসনের সংসদ সদস্য আবুল মাল আবদুল মুহিত। তাঁর সম্মতির পরিপ্রেক্ষিতে জি টু জি প্রকল্পের আওতায় কোর্ট পয়েন্টে স্থাপিত হয় এই সিলেটের প্রথম \’ফুট ওভারব্রিজ\’। প্রায় ১ কোটি ৬৩ লাখ টাকা ব্যয়ে ২০১৫ সালে নির্মিত হলে অর্থমন্ত্রীই নিজে এটির উদ্বোধন করেন।

কিন্তু ব্রিজ নির্মাণের পর এর ব্যবহারে আগ্রহ বাড়েনি নগরবাসীর। প্রথমদিকে কিছু লোক ব্রিজ দিয়ে শখের বসে পারাপার হলেও এখন ব্রিজটি ব্যবহার করছেন না কেউই। অবশ্য, ব্রিজটি ব্যবহারের জন্য সিসিকের পক্ষ থেকে কোনোরকম সচেতনতা বা প্রচারণাও চোখে পড়েনি নগরবাসীর। ফলে কিছুদিন আগেও যেখানে সেলফি তোলার হিড়িক ছিল, এখনও তাও চোখে পড়ে না একেবারেই।

এদিকে, সিলেট নগরীর বন্দরবাজারে নির্মিত ফুট ওভারব্রিজটি রীতিমতো সিলেট সিটি করপোরেশনের মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়ায়। একপর্যায়ে ব্রিজটি বন্দর পয়েন্ট থেকে দক্ষিণ সুরমার হুমায়ুন রশিদ চত্বরে স্থানান্তরের সিদ্ধান্ত নেয় সিসিক। এতে নির্মাণ ব্যয়ের প্রায় সমান খরচ হবে বিধায় ব্রিজটি সরিয়ে নেয়ার চিন্তা থেকে সরে আসেন মেয়র আরিফ। এরপর ২০১৯ সালের শেষের দিকে ব্রিজটি নিলামের জন্য দরপত্র আহবান করে সিসিক। নিলামে আশানুরূপ দাম না উঠায় নিলাম বাতিল করা হয়। বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে ব্রিজটি নিয়ে আর ভাবছে না সিসিক। এরই মাঝে সিলেট মহানগরীতে আরও ৫টি ফুট ওভারব্রিজ বসানোর পরিকল্পনা প্রকাশ করলেন মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top

সম্পাদক ও প্রকাশক: এড: মোঃ আব্দুল্লাহ আল হেলাল 01726840304

নির্বাহী সম্পাদক: আব্দুল হামিদ
বার্তা সম্পাদক: মুতিউর রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: সাহেদ আহমদ
উপ-সম্পাদক: ইয়াছিন আলী
উপ-সম্পাদক: ওয়াহিদ মাহমুদ

লেভেল-২, সুরমা টাওয়ার, তালতলা, সিলেট-৩১০০।
০১৭২৬-৮৪০৩০৪
news.sylhetdiganta@gmail.com