• সারাদেশ

    উইঘুর মুসলিম সম্প্রদায়ের সমান অধিকারের দাবিতে মানবাধিকার সংরক্ষণ পরিষদ সিলেটের মানববন্ধন

      প্রতিনিধি ১ অক্টোবর ২০২৩ , ১২:২৫:১৮ প্রিন্ট সংস্করণ

    উইঘুর মুসলিম সম্প্রদায়ের সমান অধিকারের দাবিতে মানবাধিকার সংরক্ষণ পরিষদ সিলেটের মানববন্ধন

    মানবাধিকার সংরক্ষণ পরিষদ সিলেট এর উদ্যোগে চীনের জাতীয় দিবস উপলক্ষে উইঘুর মুসলিম সম্প্রদায়ের ওপর চীনা সরকারি বাহিনীর বর্বর কর্মকাণ্ডের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে উইঘুর মুসলিম সম্প্রদায়ের সমান অধিকারের দাবিতে এক মানবন্ধন গতকাল ১ অক্টোবর রবিবার বিকালে নগরীর কোর্ট পয়েন্টে অনুষ্ঠিত হয়।
    মানবাধিকার সংরক্ষণ পরিষদ সিলেটের সভাপতি প্রিন্সিপাল শায়খ মাওলানা মাহমুদুল হাসান এর সভাপতিত্বে মানববন্ধন প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ মাওলানা আব্দুল মালিক চৌধুরী। বক্তব্য রাখেন মাওলানা আবু বক্কর সিদ্দিক সরকার, মাওলানা শিব্বির আলম খান, মাওলানা আফসারুল আমিন, প্রফেসর মাওলানা হাফিজ নাজিম উদ্দিন, আব্দুল্লাহ আল হেলাল, মাওলানা রুহুল আমীন প্রমুখ।
    মানববন্ধন শেষে এক বিশাল র‌্যালি সিলেট নগরীর প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। মানববন্ধন ও র‌্যালিতে সর্বস্তরের তৌহিদী জনতা উপস্থিত ছিলেন।
    মানববন্ধনে চিনের উইঘুর মুসলমানদের নির্যাতন, হত্যা ও মানবাধিকার লংঘনের প্রতিবাদ জানিয়ে বক্তারা বলেন, ১ অক্টোবর চিনের জাতীয় দিবস। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য চিনের উইঘুর সম্প্রদায়ের জন্য কোন জাতীয় দিবস নয়। কারণ উইঘুর মুসলমানদের ওপর জিনজিয়াং প্রদেশে গুরুতর মানবাধিকার লঙ্ঘনের জন্য চিন সরকার দায়ী। চিনের সরকারি বাহিনীর বিরুদ্ধে নির্যাতন, দুর্ব্যবহার, জোরপূর্বক চিকিৎসা গর্ভপাত সহ নানা অনিয়মের প্রমাণিক অভিযোগ রয়েছে।
    ২০১৪ সাল চিনের কমিউনিস্ট পার্টি (সিসিপি) এক মিলিয়নেরও বেশি তুর্কি মুসলিমদেরকে কোনও আইনি প্রক্রিয়া ছাড়াই আন্তর্জাতিক বন্দী শিবিরে আটক রেখেছে। যা আন্তর্জাতিক আইনের লংঘন।
    বক্তারা বলেন, ২০১৭ সাল থেকে, প্রায় ষোল হাজার মসজিদ ভেঙে ফেলেছে এবং ক্ষতিগ্রস্ত করেছে। বক্তারা চিন সরকারের এ সকল অপকর্মের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অনতিবিলম্বে সংখ্যা লঘু মুসলমানদের পূর্ণ নাগরিক অধিকার ফিরিয়ে দিয়ে মানবাধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য চাপ সৃষ্টি করতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি উদাত্ত আহবান জানান। বিজ্ঞপ্তি

    আরও খবর

    Sponsered content