ঢাকা,২৩শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দক্ষিণ সুরমায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে বিমাতা সুলভ আচরণ॥ জনমনে ক্ষোভ

received_2914960075417955.jpeg

সিলেটের দক্ষিণ সুরমার কীনব্রিজের মুখ থেকে টার্মিনাল রোড এলাকায় সিলেট সড়ক ও জনপথ এর অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযানে বিমাতা সুলভ আচরণ করেছে বলে অভিযোগ করেছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

জানা যায়, ২৮ ফেব্রুয়ারি সকাল সাড়ে ১০টায় সিলেট সড়ক ও জনপথ এর উদ্যোগে টার্মিনাল রোডের পাশে ১০/১২টি পাকা ও আধপাকা দোকানে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালিত হয়। অভিযানের সময় মাত্র কয়েকটি দোকান উচ্ছেদ করার পর সড়ক ও জনপথের লোকজন চলে যায়।
স্থানীয়রা অভিযোগ করেন কীনব্রিজের মুখ হতে কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল রোডে বিভিন্ন স্থানে সিলেট সড়ক ও জনপথ বিভাগের কোটি টাকার সরকারি জায়গা প্রভাবশালী মহল দীর্ঘদিন যাবৎ জোরপূর্বক দখল করে সেখানে স্থাপনা তৈরী করে ব্যবসা পরিচালনা করছেন। উক্ত স্থাপনা তৈরী করে স্থানীয় অনেকের বাড়ির যাতায়াতে বিঘ্ন সৃষ্টির পাশাপাশি রাস্তা বন্ধ করা হয়েছে। ভোক্তভোগিরা সড়ক ও জনপথ সিলেট বিভাগকে লিখিত অভিযোগ করার পর গত শনিবার বিকালে কর্তৃপক্ষ টার্মিনাল রোডের উভয় পাশের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের জন্য মাইকিং করে। কিন্তু রোববার সকালে অভিযানে মাত্র কয়েকটি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করলেও বাকীগুলো না করায় উচ্ছেদের নামে বিমাতা সুলভ আচরণ ও উদ্দেশ্যমূলক লোক দেখানো এই অভিযান বলে স্থানীয়দের অভিযোগ।
জনসাধারণরা যাতে সড়কের উভয় পাশ দিয়ে নিবিঘ্ন ভাবে চলাচল করতে পারেন তার জন্য পুনরায় উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা জন্য ভোক্তভোগীরা কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন।
আলাপকালে সিলেট সড়ক ও জনপথের বিভাগীয় সার্ভেয়ার আমজাদ হোসেন অভিযানের সততা স্বীকার করে বলেন, টার্মিনাল রোডে ১০/১২টি পাকা-আধাপাকা অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছে। অভিযানের আগে নোটিশ ও মাইকিং করে দখলদারে জানানো হয়। সড়ক ও জনপথ ঢাকা অফিসের এস্টেট ল’ অফিসার (উপ-সচিব) আব্দুল লতিফ খানের নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালিত হয়। আজ কয়েকটি দোকান উচ্ছেদ করা হয়েছে পর্যায়ক্রমে সড়কে উভয়ে পাশে সকল অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে। আগামীতে দক্ষিণ সুরমা হুমায়ুন রশীদ চত্বর থেকে সিলেট-ফেঞ্চুগঞ্জ সড়কের অবৈধ স্থাপনাগুলো উচ্ছেদ করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top