ঢাকা,২৩শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সিলেট জেলা বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল সমাবেশ হবিগঞ্জের শান্তিপূর্ণ সমাবেশে হামলা ও নির্বিচারে গুলীবর্ষণ আওয়ামী ফ্যাসিবাদের নগ্ন বহিঃপ্রকাশ —-কামরুল হুদা জায়গীদার

FB_IMG_1640434290709.jpg

সিলেট জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কামরুল হুদা জায়গীরদার বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপার্সন ও তিন বারের সাবেক সফল প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা নিশ্চিতে দ্রুত বিদেশ পাঠানোর দাবীতে হবিগঞ্জ বিএনপি আয়োজিত শান্তিপূর্ণ সমাবেশে হামলা ও নির্বিচারে গুলীবর্ষণ আওয়ামী ফ্যাসিবাদের নগ্ন বহিঃপ্রকাশ। সরকার দেশে একদলীয় বাকশাল কায়েম করতে সরকারী বাহিনীকে দলীয় লাঠিয়াল বাহিনী হিসেবে ব্যবহার করছে। হবিগঞ্জের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারি বাহিনীর কতিপয় অতিউৎসাহী কর্মকর্তা কোন কারণ ছাড়াই বিএনপির দলীয় নেতাকর্মীদের গুলীবর্ষণ করেই ক্ষান্ত হননি। আহত নেতাকর্মীদের অন্যায়ভাবে গ্রেফতার ও হাজার হাজার নেতাকর্মীকে আসামী করে ষড়যন্ত্রমূলক মামলা দায়ের করেছেন। তারা এর মাধ্যমে দেশের রাজনৈতিক ময়দানকে উত্তপ্ত করে বিরোধী নেতাকর্মীদের হামলা মামলা ও নির্যাতনের পথ প্রশ^স্ত করছেন। এর পরিনতি কারো জন্য মঙ্গলজনক হবেনা। সকল জুলুম নিপীড়নের বিচার বাংলার মাঠিতে হবেই।
তিনি শনিবার বিএনপির কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে, হবিগঞ্জে বিএনপির সমাবেশে হামলা ও নির্বিচারে গুলীবর্ষণের প্রতিবাদে সিলেট জেলা বিএনপি আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিল পরবর্তী সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন। মিছিলটি নগরীর ঐতিহাসিক কোর্ট পয়েন্ট থেকে শুরু হয়ে নগরীর প্রধান প্রধান পয়েন্ট প্রদক্ষিণ শেষে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে গিয়ে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মধ্যে দিয়ে সমাপ্ত হয়। এতে জেলা বিএনপি অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী অংশ নেন।
মিছিলে উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও জেলা আহ্বায়ক কমিটির ১নং সদস্য আবুল কাহের চৌধুরী শামীম, আহ্বায়ক কমিটির সদস্য আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী, ফখরুল ইসলাম ফারুক, অধ্যাপিকা সামিয়া বেগম চৌধুরী, মাহবুবুর রব চৌধুরী ফয়সল, এডভেকেট হাসান আহমদ পাটোয়ারী রিপন, আব্দুল আহাদ খান জামাল, মাহবুবুল হক চৌধুরী, আবুল কাশেম, শামীম আহমদ, সদর উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক এ কে এম তারেক কালাম, বিএনপি নেতা শহীদ আহমদ চেয়ারম্যান, কামরুল হাসান চৌধুরী শাহীন, জেলা সাবেক স্বাস্থ্য সম্পাদক আ ফ ম কামাল, সাবেক সহ কোষাধ্যক্ষ জাকির হোসেন, সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিব, সাবেক সহ-দফতর সম্পাদক আব্দুল মালেক, সাবেক সহ আইন বিষয়ক সম্পাদক ও জেলা যুবদলের ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক এডভোকেট মুমিনুল ইসলাম মুমিন, সাবেক সহ ত্রাণ বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল লতিফ খান, সাবেক সহ ক্ষুদ্র ঋণ বিষয়ক সম্পাদক এনামুল হক মাক্কু, সাবেক সদস্য শফিকুর রহমান টুটুল, আজাদ মেম্বার, কামরুজ্জামান দীপু, রফিকুল ইসলাম, জেলা যুবদলের সদস্য সচিব মকসুদ আহমদ, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সদস্য সচিব দেওয়ান জাকির হোসেন খান, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি আলতাফ হোসেন সুমন ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন নাদিম প্রমূখ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top